meghna
5519

শনিবার (১৪ জানুয়ারি) বিপিএলের ম্যাচ শেষে প্রকাশ্যে সংবাদ সম্মেলনে আসেন কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের কোচ মোহাম্মদ সালাউদ্দিন। সেখানে কথা বলার আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ এনে কুমিল্লার এই হেড কোচকে ম্যাচ ফি’র ৫০ শতাংশ জরিমানা করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। জরিমানার পাশাপাশি তিনটি ডিমেরিট পয়েন্টও যোগ হয়েছে সালাউদ্দিনের নামে।

meghna

ফরচুন বরিশালের বিপক্ষে মাঠে জাকের আলি অনিকের আউটের পর ম্যাচ শেষে কুমিল্লার কোচ মোহাম্মদ সালাউদ্দিন সংবাদ সম্মেলনে বলেন, কি করতে পারি? আমাদের তো কিছু করার নেই। আমরা মাঠে চিল্লাচিল্লি করি এটা কি চান? এমনিই সাসপেন্ড করে দেবে। ঠিক আছে। যেহেতু খেলা চলছে। প্রতিবাদ করেও তো লাভ নেই। আমরা লিখিত দেব বা প্রতিবাদ করব সেটা করেও তো লাভ নেই। কোনো লাভ হবে না। আসলে কিছু করার নেই। হাত পা বাঁধা আছে। যা হওয়ার তাই হবে আর কি।

এই ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতেই রবিবার রাতে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তি পাঠিয়ে বিসিবি জানিয়েছে, শনিবার চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে ফরচুন বরিশালের বিরুদ্ধে কুমিল্লার ম্যাচের পর সালাউদ্দিনকে বিসিবি কোড অব কন্ডাক্ট এবং প্লেয়ার সাপোর্ট প্যানেলের লেভেল ২ অনুচ্ছেদ ২.৭ লঙ্ঘনের জন্য দোষী সাব্যস্ত করা হয়েছে। যা ‘একটি ম্যাচে ঘটতে থাকা একটি ঘটনার বিষয়ে পাবলিক সমালোচনা বা অনুপযুক্ত মন্তব্য’-এর সঙ্গে সম্পর্কিত।’

বিসিবির আচরণবিধি ভঙ্গের জন্য ম্যাচ ফি’র ৫০ শতাংশ জরিমানা করা হয়েছে মোহাম্মদ সালাউদ্দিনকে। পাশাপাশি তিনটি ডিমেরিট পয়েন্ট যোগ হলো তার নামের পাশে। মোহাম্মদ সালাউদ্দিন ম্যাচ রেফারি দেবব্রত পালের দেওয়া শাস্তি মেনে নিয়েছেন। দোষ স্বীকার করায় এ ব্যাপারে আর শুনানির প্রয়োজন পড়েনি।

অনফিল্ড আম্পায়ার ডেভিড মিলনস এবং মোরশেদ আলি খান, থার্ড আম্পায়ার তানভীর আহমেদ এবং ফোর্থ অফিসিয়াল মোজাহিদুজ্জামান স্বপন এই অভিযোগ তুলেছেন মোহাম্মদ সালাউদ্দিনের বিরুদ্ধে।

এ ঘটনার পর অবশ্য মোহাম্মদ সালাউদ্দিন জরিমানার একটি নিউজ শেয়ার করে ক্যাপশানে লিখেছেন ‘সুবহানআল্লাহ’।

meghna

আরও পড়ুন


meghna